কেমন আছেন সবাই? যারা ফোর-জি স্মার্টফোন কেনার কথা ভাবছেন তাদের জন্য আমার এই পোষ্ট। আমি আপনাদের জন্য ৭টি ফোর-জি স্মার্টফোনের মূল তালিকা সহ বিবরণ আলোচনা করেছি। তাহলে চলুন আর বেশি কথা না বলে নিচের থেকে জেনে নেই। সবাই ভালো থাকুন।

১। সিম্ফনি আইনোভা-

২০১৮ সালের জানুয়ারিতে দেশীয় মোবাইল প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান সিম্ফনি মালি টি-৭২০ এই মডেলটি বাজারে ছেড়েছে। এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়াডকোর প্রসেসর।স্মার্টফোনটিতে ৫ ইঞ্চির ৭২০পি আইপিএস পর্দা দেয়া হয়েছে। ২৯০০ মিলিঅ্যাম্পায়ার ব্যাটারি ব্যাকআপ দেয়া আছে। ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরাটি একটি স্যামসাং সেন্সর, সাথে আছে ফেইস বিউটি, ব্যুকে ও ফিসআই মোড ২.২ অ্যাপাচারের ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরাটি দেওয়া আছে। এই ফোনে ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে। ১৬ গিগাবাইট রম ব্যবহার করা হয়েছে। প্রক্সিমিটি, লাইট এবং জি সেন্সর রয়েছে এই স্মার্টফোনটিতে। এই ফোনটি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ৮,৩৯০ টাকায়।

২। শাওমি রেডমি ৪ এ

রেডমি ৪এ ২০১৬ সালের নভেম্বরে বাজারে আনা হয়েছিল। স্মার্টফোনটিতে আছে ৫ ইঞ্চির ৭২০পি আইপিএস পর্দা, ব্যাটারি ব্যাকআপ হিসেবে আছে ৩১২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার।কোয়ালকম স্নাপড্রাগন ৪২৫ চিপসেট এবং আড্রিনো ৩০৫ জিপিইউ দেয়া আছে।আইপিএস পর্দা আছে ৫ ইঞ্চির ৭২০পি। ব্যাকআপ হিসেবে আছে ৩১২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে।
৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা, ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা আছে। ২.২ অ্যাপাচার বিশিষ্ট উভয় ক্যামেরাতে দেয়া আছে। আন্ড্রয়েড ৬.০ এর উপরে মি ইউআই (MIUI 8.0) দেয়া হয়েছিল এই ফোনে যা আপডটযোগ্য। জাইরোস্কোপ, প্রক্সিমিটি, কম্পাস এবং আক্সেলেরোমিটার সেন্সর আছে।এই স্মার্টফোনটির মূল্য ৯,৯৯০ টাকা।

৩। সিম্ফনি আর১০০

সিম্ফনি আর১০০ সিরিজের স্মার্টফোনটি। মালি টি-৭২০ সিরিজের জিপিইউ এবং প্রসেসর হিসেবে কোয়াডকোর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সেলফি ধারণের জন্য একটি ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা দেয়া রয়েছে।আইপিএস ৫ ইঞ্চির পর্দার সাথে ১৬ গিগাবাইট ইন্টারনাল রম পাওয়া যাবে। এই ফোনে জি সেন্সরসহ লাইট, হল এবং ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে। ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ফোনটির ব্যাটারি ব্যাকআপ রয়েছে। ২ ও ৩ গিগাবাইট র‍্যামের ভার্ষণ রয়েছে।বাজার মূল্য রয়েছে ৯,৯৯০ ও ১১,৯৯০ টাকা।

৪। হুয়াওয়ে ওয়াই৫

২০১৭ সালের জুনে চাইনিজ স্মার্টফোন নির্মাতা বাজারে এনেছে হুয়াওয়ে ওয়াই৫। ৫ ইঞ্চির ৭২০পি আইপিএস পর্দা দেয়া হয়েছে স্মার্টফোনটিতে। ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক এমটি৬৭৩৭টি প্রসেসর। ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ব্যাকআপ হিসেবে দেয়া আছে। ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা, ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। ১৬ গিগাবাইট রমের এই ফোনে ১২৮ জিবি পর্যন্ত মেমরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে। দুটি ক্যামেরায়ই আছে ফ্লাশলাইট।স্মার্টফোনটিতে প্রক্সিমিটি, কম্পাস এবং আক্সেলেরোমিটার সেন্সর রয়েছে।গোল্ড, পিঙ্ক, নীল, সাদা এবং গ্রে রঙে পাওয়া যাচ্ছে।বাজার মূল্য ৯,৯৯০ টাকা।

৫। ওয়াল্টন প্রিমো আরএইচ৩

মালি ৪০০ জিপিইউ এবং কোয়াডকোর প্রসেসর দিয়ে তৈরি এই স্মার্টফোনটিতে আছে ৫ ইঞ্চির ২.৫ ডি কার্ভড ৭২০পি অন-সেল পর্দা, ২৬০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ব্যাকআপ হিসেবে আছে । ফোনটিতে আছে ৮ মেগাপিক্সেলের ২.০ অ্যাপাচারবিশিষ্ট বিএসআই রিয়ার ক্যামেরা আছে। ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরায় আছে এইচডিআর, ফেইসবিউটি মোড। দুই সিমস্লটের এই ফোনে ১৬ জিবি স্টোরেজ রয়েছে। এছাড়া ১২৮ জিবি পর্যন্ত মেমরি কার্ড ব্যবহারের সুবিধা দেয়া হয়েছে। প্রক্সিমিটি, গ্রাভিটি, ফিঙ্গার, আক্সেলেরোমিটার ইত্যাদি সেন্সর তো আছেই। বাংলাদেশের বাজারে ২ গিগাবাইট র‍্যামের এই স্মার্টফোনটির মূল্য ৯,৯৯০ টাকা।

৬। মাইক্রোম্যাক্স ক্যানভাস ইউনাইট ৪প্রো

এই স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে স্প্রেডটার্ম এসসি ৯৮৩২ কোয়াডকোর প্রসেসর। ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং ফ্রন্ট ফ্ল্যাশলাইটসহ ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। ব্যাটারি ব্যাকআপ হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে ৩৯০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, যা প্রয়োজনে খোলা যায়। ৫ ইঞ্চির ৭২০পি আইপিএস পর্দা দেয়া হয়েছে এই ফোনে। প্রক্সিমিটি, আক্সেলেরোমিটার, গ্রাভিটি, লাইট, হল এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে এই স্মার্টফোনটিতে। ফোনটিতে দেয়া আছে ৩২ গিগাবাইট রম। স্মার্টফোনটির বাজারমূল্য ৯,৫৫০ টাকা।

৭। মাইক্রোম্যাক্স ক্যানভাস ১

মালি টি-৭২০ জিপিইউ’র সাথে এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক এমটি৬৭৩৭টি প্রসেসর। স্মার্টফোনটিতে ৫ ইঞ্চির ৭২০পি আইপিএস পর্দা দেয়া হয়েছে। ব্যাটারি ব্যাকআপ হিসেবে আছে ২৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরায় আছে ১.৪ মাইক্রনপিক্সেল। ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরাটি ওয়াইড এঙ্গেল। ১৬ গিগাবাইট রমের এই ফোনে ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহারের সুযোগ রাখা হয়েছে। প্রক্সিমিটি, আক্সেলেরোমিটার সেন্সর রয়েছে এই স্মার্টফোনটিতে। স্মার্টফোনটির বাজার মূল্য ৭,৫৯৯ টাকায়।

বন্ধুগণ পোষ্টটি আপনাদের কেমন লাগল তা কমেন্ট করে জানাবেন। আবারও নতুন কিছু নিয়ে হাজির হব।

সবাই ভালো থাকুন। আইকনফোরবিডি এর সঙ্গে থাকুন।

2726 views 45 Views Today